রোজ শুক্রবার, ৭ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, রাত ৯:৫৩


শিরোনামঃ
বরিশালে চাকরিপ্রত্যাশী যুব প্রজন্মের মানববন্ধন বি এম কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ শামসুদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে বি এম কলেজ অর্থনীতি বিভাগ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি প্রফেসর মোঃ ইসহাক আলী খন্দকার ও সম্পাদক মোঃ আখতারুজ্জামান খান গভীর শোক প্রকাশ একুশে পদকপ্রাপ্ত বর্ষীয়ান সাংবাদিক তোয়াব খানের মৃত্যুতে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী’র শোক প্রকাশ অর্থনীতি বিভাগ বিতর্ক ক্লাবের আয়োজনে ‘ক্যারিয়ার’ বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ আর নেই। উজিরপুরে বাস ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত কিশোর প্রেমের গল্প (১ম পর্ব) শর্তময় ভালোবাসার শেষ পরিনতি (শেষ পর্ব) শর্তময় ভালোবাসার শেষ পরিনতি (২য় পর্ব) ঈদ উল আযহা উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত|| নগরীর গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে থাকছে চেকপোস্ট
ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আটক

ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আটক

অনলাইন নিউজ ডেস্কঃ নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় চার ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে এক মাদ্রাসার অধ্যক্ষকে আটক করেছে র‍্যাব-১১। উপজেলার ভূঁইগড় এলাকা থেকে শনিবার দুপুরে তাকে আটক করে হয়েছে। আটক শিক্ষকের নাম মোস্তাফিজুর রহমান (৩৪)। সে নেত্রকোনা জেলার সদর উপজেলার কাওয়াল কোনা এলাকার বাসিন্দা।
র‍্যাব সূত্রে জানা যায়, মোস্তাফিজুর রহমান উপজেলার ভূঁইগড় এলাকায় অবস্থিত দারুল হুদা আল ইসলামিয়া মহিলা মাদ্রাসা ও এতিমখানার অধ্যক্ষ। ছয় বছর আগে সে ঐ মাদ্রাসাটি প্রতিষ্ঠা করে।
স্থানীয় লোকজন ও র‍্যাব সূত্রে জানা যায়, ভূঁইগড় এলাকায় একটি চারতলা ভবনের নিচতলায় অবস্থিত দারুল হুদা আল ইসলামিয়া মহিলা মাদ্রাসা ও এতিমখানা। ওই মাদ্রাসায় ৯৫ জন ছাত্রী লেখাপড়া করছে। এর মধ্যে ৩০ থেকে ৩৫ জন ছাত্রী মাদ্রাসায় আবাসিকভাবে লেখাপড়া করছে। র‍্যাব-১১ –এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলেপ উদ্দিন প্রথম জানান, তাঁদের কাছে অভিযোগ আসে অধ্যক্ষ মোস্তাফিজুর মাদ্রাসার চার ছাত্রীকে গত তিন মাস ধরে ধর্ষণ করেছেন। অভিযোগের ভিত্তিতে র‍্যাব তদন্তে নামে। প্রাথমিকভাবে তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। পরে শনিবার দুপুরে অভিযান চালিয়ে মোস্তাফিজুরকে মাদ্রাসা থেকে আটক করা হয়। তিনি আরও বলেন, ধর্ষণের শিকার অনেক ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়েছে। ধর্ষণের সময় চিৎকার করলে তাদের মারধর করতো মোস্তাফিজ।
র‍্যাব-১১ কোম্পানি কমান্ডার মেজর তালুকদার নাজমুস সাকিব সাংবাদিকদের বলেন, ‘ঐ অধ্যক্ষের মুঠোফোনে আমরা কিছু রেকর্ড পেয়েছি। সেগুলো আমরা খতিয়ে দেখছি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।’

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন-০১৮২২৮১৫৭৪৮

Md Saiful Islam