রোজ শুক্রবার, ৭ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৩:৪৪


শিরোনামঃ
বরিশালে চাকরিপ্রত্যাশী যুব প্রজন্মের মানববন্ধন বি এম কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ শামসুদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে বি এম কলেজ অর্থনীতি বিভাগ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি প্রফেসর মোঃ ইসহাক আলী খন্দকার ও সম্পাদক মোঃ আখতারুজ্জামান খান গভীর শোক প্রকাশ একুশে পদকপ্রাপ্ত বর্ষীয়ান সাংবাদিক তোয়াব খানের মৃত্যুতে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী’র শোক প্রকাশ অর্থনীতি বিভাগ বিতর্ক ক্লাবের আয়োজনে ‘ক্যারিয়ার’ বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ আর নেই। উজিরপুরে বাস ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত কিশোর প্রেমের গল্প (১ম পর্ব) শর্তময় ভালোবাসার শেষ পরিনতি (শেষ পর্ব) শর্তময় ভালোবাসার শেষ পরিনতি (২য় পর্ব) ঈদ উল আযহা উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত|| নগরীর গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে থাকছে চেকপোস্ট
করোনা সংক্রমনে আরেক অভিনেতার প্রস্থান

করোনা সংক্রমনে আরেক অভিনেতার প্রস্থান

নিউজ ডেস্ক: করোনার থাবায় চলে গেলেন দেশের গুণী অভিনেতা এস এম মহসীন। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর বারডেম হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। করোনা তার ফুসফুসে সংক্রমিত হয়ে পড়েছিল মারাত্মকভাবে।
চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার (১৮ এপ্রিল) সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এস এম মহসীনের ছেলে বাসেদ মহসীন।
এদিকে নাটকের পরিচালকদের সংগঠন ডিরেক্টর’স গিল্ডের সভাপতি সালাহউদ্দিন লাভলু জাগো নিউজকে নিশ্চিত করলেন, আজ বাদ আসর মরহুমের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর আজিমপুর কবরস্থানে সমাহিত হবেন একুশে পদকজয়ী এস এম মহসীন।
৭৩ বছর বয়সী এ অভিনয়শিল্পী সম্প্রতি পাবনায় ওয়াজেদ আলী সুমন পরিচালিত ‘অন্তরাত্মা’ ছবির শুটিংয়ে অংশ নিয়েছিলেন। সেখান থেকে ফিরেন গত ২ এপ্রিল। ফেরার পরবর্তীতে তার করোনার উপসর্গ দেখা দিলে তাকে পরিবারের সদস্যরা প্রথমে একটি হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখান থেকে পরবর্তীতে ইমপালসে নিয়ে যাওয়া হয়।
অবস্থার অবনতি ঘটলে এই অভিনেতাকে নেয়া হয় বারডেম হাসপাতালে। সেখান থেকেই না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন তিনি।
এস এম মহসীন প্রায় চার দশক ধরে মঞ্চ ও টেলিভিশনে অভিনয় করছেন। অভিনয়ে প্রশংসনীয় অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ২০২০ সালে একুশে পদক পেয়েছেন তিনি। দীর্ঘদিন তিনি চাকরি করেছেন শিল্পকলা একাডেমিতে। পাশাপাশি শিক্ষকতাও করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে।
তিনি ২০১৮ সাল থেকে বাংলা একাডেমির একজন সম্মানিত ফেলো।
Courtesy by j/n

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন-০১৮২২৮১৫৭৪৮

Md Saiful Islam