রোজ বৃহস্পতিবার, ২২শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৫:২৪

শিরোনামঃ
মেহেন্দিগঞ্জে মা ইলিশ রক্ষায় অব্যাহত অভিযানে ৬৭ জেলের কারাদন্ড এবং লক্ষাধিক টাকা জরিমানা আদায় পলাশপুর কলোনীতে মহানগর গোয়েন্দা বিএমপি’র ব্লক রেইড। মাধ্যমিকে বার্ষিক পরীক্ষা হচ্ছে না, অ্যাসাইনমেন্টে মূল্যায়ণ মেহেন্দিগঞ্জে মা ইলিশ রক্ষায় ৫৯ জেলের কারাদন্ড; ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা জরিমানা আদায়৷ সনাতন ধর্মালম্বীদের শারদীয় শুভেচ্ছা জানালেন হাজী মোঃ শরিফুল হক শারদীয় দুর্গা পূজা উদযাপন উপলক্ষে সদর উপজেলা ও মহানগরের পূজা মণ্ড‌পে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর অনুদান অনলাইনে নয় সরাসরি ভর্তি পরীক্ষা ঢাবিতে, স্ব স্ব বিভাগে পরীক্ষা দেয়ার বিষয়টি বিবেচনাধীন এক আঙিনায় মসজিদ ও মন্দির সহাবস্থানে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ মা ইলিশ রক্ষায় ইউএনও-র অভিযানে ৩৫ জেলের কারাদন্ড; ৯৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায়
গণপরিবহনে নেই মাস্ক এর ব্যবহার, মানা হচ্ছে না সামাজিক দুরত্ব সহ স্বাস্থ্যবিধি !

গণপরিবহনে নেই মাস্ক এর ব্যবহার, মানা হচ্ছে না সামাজিক দুরত্ব সহ স্বাস্থ্যবিধি !

মনিরুল ইসলাম//এখন সামাজিক দূরত্ব মানা যেন আষাঢ়ে গল্প বলে মনে হবে। যদিও গ্রামাঞ্চলে কখনোই তার ছিটেফোঁটা চোখে পড়েনি। যত ভীতি সব ছিল শহর কেন্দ্রিক।

অথচ সাম্প্রীতিক সময়ে সেই শহরের সামাজিক দুরত্ব মানার দৃশ্য দেখলে খোদ করোনা ভাইরাস নিজেও লজ্জা পেয়ে মুখ লুকাবে। করোনা ভাইরাসের প্রকোপ থেকে রক্ষা পেতে সরকার তথা বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থা থেকে গৃহীত সকল পদক্ষেপ ই এখন উপেক্ষিত । মাঝেমাঝে জেলা প্রশাসন থেকে কিছু অভিযান পরিচালনা করতে দেখা গেলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম। মানুষ জীবিকার তাগিদে ভুলে যেতে চলেছে জীবনের মর্মার্থ। তাই তো মানুষ জীবিকার স্বার্থে নিজেকে উৎস্বর্গ তো করছেই তার সাথে বিপদে ফেলছেন অন্যান্যদের জীবনকেও।

করোনাকালীন সময়ে করোনার প্রকোপ রোধে পুলিশ প্রশাসন ও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে যেসব পদক্ষেপ নিতে দেখা গেছে বর্তমানে তার কিছুই চোখে পড়ছে না। আর সেই সুযোগে প্রায় সর্বস্তরেই মাস্কের ব্যবহার, হ্যান্ডস্যানিটাইজারের ব্যবহার, সহ সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্রে ঢিলেঢালা ভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে।

গণপরিবহনের প্রায় সকল রুটেই অতিরিক্ত যাত্রী বহন করতে দেখা যাচ্ছে। একটি অনসন্ধানে দেখা গেছে, বাস স্টান্ড থেকে কম যাত্রী নিয়ে গেলেও তারা পথেপথে যাত্রী নিয়ে গাদাগাদি করে গন্তব্য স্থানে পৌঁছে। খোজঁ নিয়ে দেখা গেছে লাখুটিয়া সড়কের সকল যানবাহনে করোনাকালীন সময়ের জন্য নির্ধারিত ভাড়ায় যাত্রী পরিবহন করে অথচ তারা যাত্রী ভর্তি করেই নিচ্ছে। এ নিয়ে প্রায় সময়ই যাত্রী এবং ড্রাইভারের মধ্যে কথা কাঁটাকাঁটি এবং হাতাহাতি হতে দেখা যায়।

বর্তমান বাস্তব চিত্র লক্ষ্য করলে দেখা যায় যে গণপরিবহনে নেই কোন সামাজিক দূরত্ব বা স্বাস্থ্যবিধি মানার প্রবণতা, এমনকি ৭০% ব্যক্তির মুখেই মাস্ক নেই, বাকি ৩০% এর মধ্যে ২০% সঠিক ভাবে ব্যবহার করছে, এর ফলে মাস্ক ব্যবহার করা ১০% ব্যক্তি শুধু লোক দেখানো ভাবে রাখছেন। যার ফলে সর্বস্তরের মানুষই স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে।