রোজ মঙ্গলবার, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৬:১৮

শিরোনামঃ
মানুষকে সেবা প্রদান করে যে ভালোবাসা পাওয়া যায়, তার চাইতে বড় আত্মতৃপ্তি আর কিছুই নেই__পুলিশ কমিশনার বিএমপি। বরিশালে ৪৬ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার ০২ জন বাকেরগঞ্জে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে, কারাগারে পাঠানোর দায়ে, ম্যাজিস্ট্রেটের বিচারিক ক্ষমতা প্রত্যাহারের নির্দেশ ১২০ পিস ইয়াবা সহ গ্রেফতার ০২ নাগরিক নিরাপত্তা ও সামাজিক সমস্যা নিরসনে বিএমপি সদা জাগ্রত- বিএমপি কমিশনার। বরিশালে ০৩ কেজি গাঁজা সহ গ্রেফতার ০১ পটুয়াখালীতে প্রেমিক যুগলের একই দড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা বিএমপি’র অভিযানে ২০৫ পিস ইয়াবা ও ৫৮ গ্রাম গাঁজা সহ গ্রেফতার ০২ পটুয়াখালীতে মোটরসাইকেল-মাহিন্দ্রার সংঘর্ষে স্বর্না (১০) নামের এক শিশুর মৃত্যু বাটাজোরে ধান ক্ষেতে এক নারীর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার।
বাটাজোরে ধান ক্ষেতে এক নারীর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার।

বাটাজোরে ধান ক্ষেতে এক নারীর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার।

ধানসিঁড়ি নিউজ।। ফেইসবুকে পরিচয়ের মাধ্যমে আগড়পুরের একটি ছেলের প্রেমে পড়ে ঘর ছাড়েন মেয়েটি। প্রেমিক ছেলেটি সেনাবাহিনীর ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারী হয়েও সে নিজেকে সেনাবাহিনীর বড় অফিসার পরিচয় দেন। মেয়েটিকে সে অন্যের বাড়ি-ঘর নিজের বলে দেখান ভিডিও কলের মাধ্যমে। মেয়েটির পরিবারের অবস্থা ভালো ছিল তাই পরিবারের লোকেরা তাকে অন্য কোথাও তার বিয়ে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু মেয়েটি তার পরিবারের মতের বিরুদ্ধে গিয়ে ছেলেটির সাথে পালিয়ে আসেন। মেয়েটি ছেলেটির বাড়িতে আসার পরে দেখেন যে ছেলেটির বাড়ি-ঘর নেই। তারা ভাড়া বাড়িতে টিনের ঘরে থাকেন। তার বাবা একজন ভ্যান চালক। আর তার বাড়িতে ছেলেটির ডির্ভোসি বোন তার সন্তান নিয়ে থাকেন। ছেলেটির পরিবারের এই অবস্থা দেখে মেয়েটি তাকে ছেড়ে চলে যেতে চায় বগুড়াতে তার পরিবারের কাছে। তখন ছেলেটি মেয়েটির গলায় ফাঁসি দিয়ে মেয়েটিকে মেরে ফেলেন। তারপরে সেফ্টিট্যাংকির মধ্যে ফেলে দিয়ে সে আবার তার কর্মস্থলে চলে যান। মেয়েটির পরিবার বগুড়া থানায় মামলা করার পরে ছেলেটিকে তার কর্মস্থল থেকে ধরে এসব তথ্য জানতে পারেন। পরবর্তীতে ছেলেটিকে নিয়ে বগুড়া থানার লোকেরা এসে গৌরনদী থানার পুলিশদের সাহায্যে ১জুন সেফ্টিট্যাংকি খুঁজে তারা মেয়েটির পায়ের সামান্য চামড়া আর নক উদ্ধার করেন। অনেক খোজ করার পরেও গত কালকে লাশ উদ্ধার করতে ব্যর্থ হন। কিন্তু আজকে জমিতে চাষিরা কাজ করতে গিয়ে তারা দেখতে পারেন যে একটা লাশভর্তি বস্তা জমির মধ্যে পরে আছে। একটা পা বের হয়ে ছিল। তারা গৌরনদী থানায় তথ্য জানায়। তখন গৌরনদী থানার ওসি ও তার সমকর্মীরা এসে লাশটি সনাক্ত করেন। ছেলেটির বয়ান অনুযায়ী বলা হয় সেফ্টিট্যংন্কিতে লাশটি রাখেন তিনি। আবার সেখান থেকে বস্তা ভরে জমির মধ্যে লাশটি রেখে দেন ছেলেটির বাবা-মা,বোন। গতকাল থেকে ছেলেটির বাবা-মা,বোন পলাতক রয়েছে।