রোজ রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৬:১৮


অপারেশন করার সময় এসএসসি ও এইচএসসি পাস করা দুই ভুয়া চিকিৎসককে আটক করেছে র‌্যাব।

অপারেশন করার সময় এসএসসি ও এইচএসসি পাস করা দুই ভুয়া চিকিৎসককে আটক করেছে র‌্যাব।

অনলাইন নিউজঃরাজধানীর ধোলাইপাড়ে কিউর জেনারেল হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে এক রোগীর অপারেশন করার সময় এসএসসি ও এইচএসসি পাস করা দুই ভুয়া চিকিৎসককে আটক করেছে র‌্যাব।
বুধবার রাত ৩টায় তাদের আটক করা হয়। এইচএসসি পাস ব্যক্তির নাম আল মাহমুদ। আর এসএসসি পাস নারী ওই হাসপাতালের মালিক। তার নাম রহিমা। এই দুই জনই নিজেদের ডাক্তার বলে পরিচয় দিয়ে আসতেন।
অভিযানের নেতৃত্ব দেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম।
তিনি  বলেন, আল মাহমুদ নামে ওই ব্যক্তি মাত্র এইচএসসি পাস। কিন্ত তিনি নিজেকে এমবিবিএস (এফসিপিএস পার্ট-টু) বলে পরিচয় দেন। এই দুজন ইতোমধ্যে অনেকের অপারেশন করেছেন। বুধবার রাতে কিউর হাসপাতালের সাতজন রোগীর মধ্যে পাঁচজনের অপারেশন করেছিলেন তারা। তিনজনের সিজার আর দুজনের জরায়ু অপসারণ।
গতরাতে অভিযানের সময় দেখা যায়, কোনো স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞের মতামত ছাড়া শাবানা নামে এক রোগীর জরায়ু কেটে ফেলে দেন তারা। অপারেশনের সময়ও থিয়েটারে কোনো বিশেষজ্ঞ ছিলেন না। ভুয়া এই দুই ডাক্তারই অপারেশন করেন।
তিনি আরও বলেন, হাসপাতালের মালিক রহিমা এসএসসি পাস। তিনিও নিজেকে চিকিৎসক দাবি করে অপারেশন করেন। ১০ জুলাই এক রোগীর সিজার করার সময় তার হাতে এক নবজাতক মারা যায়।
অভিযানে এই দুজনকে তাদের অভিজ্ঞতা ও কোথায় পড়াশোনা করেছেন, সে বিষয়ে জানতে চাইলে তারা কোনো সদোত্তর দিতে পারেননি। তাই তাদের দুই বছর করে কারাদণ্ড ও ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়। হাসপাতালটি সিলগালা করা হয়েছে।
বুধবার মধ্যরাত পর্যন্ত চলা ওই অভিযানে র‌্যাবের সঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন-০১৮২২৮১৫৭৪৮

Md Saiful Islam