রোজ বৃহস্পতিবার, ৬ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৩শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:৪৫

শিরোনামঃ
মির্জাগঞ্জে ৬০ হাজার কেজি নিষিদ্ধ পলিথিন জব্দ শেখ হাসিনার দূরদর্শিতায় মানুষের জীবিকা ও অর্থনীতি সচলঃ এমপি জ্যাকব কলাপাড়ায় মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় স্কুল ছাত্র নিহত বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র ও গাঁজা সহ পিতা-পুত্র গ্রেফতার। ইসরায়েলে ধর্মীয় উৎসবে পদদলিত হয়ে ৪৪ জনের প্রাণহানি হাসপাতাল পালানো সেই ১০ জনের ‘ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট’ পরীক্ষার উদ্যোগ নেই দিল্লির শ্মশানে দীর্ঘ লাইন, মরদেহ ছিঁড়ে খাচ্ছে কুকুর অধিক দামে তরমুজ বিক্রয় করার অপরাধে ০৬ ব্যবসায়ীকে ৯,৭০০ টাকা জরিমানা বরিশালে তরমুজের বাজার স্থিতিশীল রাখতে বিভিন্ন বাজারে মোবাইল কোর্ট অভিযানে ১৪ ব্যবসায়ীকে ১০৩০০ টাকা জরিমানা পাত্র করোনায় আক্রান্ত, পিপিই পরেই বিয়ে সারলেন কনে!
প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে সৌম্য সরকারের ডাবল সেঞ্চুরি

প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে সৌম্য সরকারের ডাবল সেঞ্চুরি

ঢাকা, ২৩ এপ্রিল – লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে সৌম্য সরকারের ডাবল সেঞ্চুরিতে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের (ডিপিডিসিএল) ২০১৮-১৯ মৌসুমের শিরোপা জিতেছে আবাহনী লিমিটেড।

মঙ্গলবার বিকেএসপিতে শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবকে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে আবাহনী।

শেখ জামালের দেয়া ৩১৮ রানের বিশাল টার্গেট ১৭ বল বাকি থাকতেই জহুরুল ইসলামের সেঞ্চুরি এবং সৌম্য সরকারের ডাবল সেঞ্চুরিতে ১ উইকেট হারিয়ে টপকে যায় আবাহনী।

সৌম্য সরকার ১৫৩ বলে ১৬টি বিশাল ছক্কা ও ১৪টি চারের সাহায্যে ২০৮ রান করে অপরাজিত থাকেন। অন্যদিকে জহুরুল ইসলাম ১২৮ বলে ৩টি ছক্কা ও ৭টি চারের সাহায্যে ১০০ রান করেন।

এদিন টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে ৮৫ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকা শেখ জামাল তানভীর হায়দারের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ৩১৭ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করায়।

লেগ স্পিনিং অলরাউন্ডার তানভীর ১১৫ বলে ৬টি বিশাল ছক্কা ও ১০টি চারের সাহায্যে ১৩২ রানের হার নামানা ইনিংস উপহার দেন। এছাড়া ইলিয়াস সানির ৪৫ ও মেহরাব হোসেনের ৪৪ ছিল উল্লেখযোগ্য স্কোর।

আবাহনীর হয়ে বল হাতে ঝলক দেখান টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। ১০ ওভারে ৫৬ রানের বিনিময়ে নেন ৪ উইকেট। এছাড়া সৌম্য, মোসাদ্দেক, সাইফউদ্দিন ও মিরাজ নেন ১টি করে উইকেট।

জবাব দিতে নেমে যেন আগের ম্যাচের মতোই ঝড় শুরু করেন আবাহনীর দুই ওপেনার সৌম্য ও জহুরুল। দুজনের উদ্বোধনী জুটিতে আসে রেকর্ড ৩১২ রান।

আগের ম্যাচে জহুরুল ৭৫ রান করে ফিরে গেলেও আজ তুলে নেন সেঞ্চুরি। আর গত ম্যাচে সেঞ্চুরি করে ফিরে যাওয়া সৌম্য সরকারের ব্যাট যেন এদিন আরও চড়াও হয়ে উঠলো।

আগের ম্যাচে ৭৯ বলে ১০৬ রানের ইনিংস খেলা সৌম্য এদিন রকিবুল হাসানের ১৯০ রানের রেকর্ড ভেঙে করলেন ২০৮ রান।

৫২ বলে অর্ধশতক করা সৌম্য শতক ছুঁয়েছেন ৭৮ বলে। পরের ফিফটিও করেছেন ২৬ বলে। ১০৪ বলে দেড়শো করা এ বামহাতি ওপেনার ১৪৯ বলে করেছেন ডাবল সেঞ্চুরি।

লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে বাংলাদেশের হয়ে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ছক্কা মারার রেকর্ডও এখন তার। ম্যাচসেরার পুরস্কারও পেয়েছেন সৌম্য।

বিশ্বকাপের আগে সৌম্য সরকারের এমন পারফরম্যান্স অবশ্যই টাইগারদের টিম ম্যানেজমেন্টকে স্বস্তি দিচ্ছে।

এদিকে ডিপিডিসিএলের রেকর্ড ২০ বারের মতো শিরোপা জিতলো আবাহনী। এ মৌসুমের রানার্সআপ হয়েছে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ।