রোজ মঙ্গলবার, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৭:৩৩

শিরোনামঃ
মানুষকে সেবা প্রদান করে যে ভালোবাসা পাওয়া যায়, তার চাইতে বড় আত্মতৃপ্তি আর কিছুই নেই__পুলিশ কমিশনার বিএমপি। বরিশালে ৪৬ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার ০২ জন বাকেরগঞ্জে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে, কারাগারে পাঠানোর দায়ে, ম্যাজিস্ট্রেটের বিচারিক ক্ষমতা প্রত্যাহারের নির্দেশ ১২০ পিস ইয়াবা সহ গ্রেফতার ০২ নাগরিক নিরাপত্তা ও সামাজিক সমস্যা নিরসনে বিএমপি সদা জাগ্রত- বিএমপি কমিশনার। বরিশালে ০৩ কেজি গাঁজা সহ গ্রেফতার ০১ পটুয়াখালীতে প্রেমিক যুগলের একই দড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা বিএমপি’র অভিযানে ২০৫ পিস ইয়াবা ও ৫৮ গ্রাম গাঁজা সহ গ্রেফতার ০২ পটুয়াখালীতে মোটরসাইকেল-মাহিন্দ্রার সংঘর্ষে স্বর্না (১০) নামের এক শিশুর মৃত্যু বাটাজোরে ধান ক্ষেতে এক নারীর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার।
অধিনায়ক মাশরাফির বিশ্বকাপ রেকর্ড

অধিনায়ক মাশরাফির বিশ্বকাপ রেকর্ড

অনলাইন ডেস্ক :

বলা হয়ে থাকে মাশরাফি বিন মর্তুজার নেতৃত্বে অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে গেছে দেশের ক্রিকেট- এ কথাটি যে পুরোপুরি সত্য, তার প্রমাণ মেলে মাশরাফির অধীনে খেলা বাংলাদেশ দলের পরিসংখ্যানে চোখ বুলালেই।
এবার বিশ্বকাপে অধিনায়ক মাশরাফির মুকুটে যোগ হলো আরও একটি পালক। দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ জয়ের রেকর্ড গড়েছেন নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত এ তারকা।
বিশ্বকাপের এবারের আসরসহ মোট ৬টিতে অংশ নিয়েছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে ২০১১ পর্যন্ত চার আসরে অধিনায়ক ছিলেন ৪ জন। একাধিক বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দেয়া একমাত্র অধিনায়ক মাশরাফি।
শুধু নেতৃত্ব দিয়েই নয়, তিনি নিজেকে আলাদা করেছেন সাফল্যের হারেও। এ বিশ্বকাপ শুরু আগপর্যন্ত অধিনায়ক হিসেবে সমান ৩টি করে জয় লেখা ছিলো হাবিবুল বাশার সুমন, সাকিব আল হাসান এবং মাশরাফি বিন মর্তুজার নামের পাশে।
রোববার কেনিংটন ওভালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচে ২১ রানে জিতে এ তালিকার সবার ওপরে উঠে গেছেন মাশরাফি। বাংলাদেশের অধিনায়কদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৪ জয় এখন তার। তাও কিনা মাত্র ৬ ম্যাচ খেলেই।
১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপে অধিনায়কত্ব করা আমিনুল ইসলাম বুলবুল জিতেছিলেন ৫ ম্যাচের মধ্যে ২টিতে। কোনো জয় আসেনি ২০০৩ বিশ্বকাপের ৬ ম্যাচে। সেবার অধিনায়ক ছিলেন খালেদ মাসুদ পাইলট।
দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ২০০৭ সালের বিশ্বকাপে হাবিবুল বাশার সুমনের অধীনে সুপার এইটে যায় বাংলাদেশ। সেবার ৯ ম্যাচ খেলে জয় আসে ৩টিতে। ঘরের মাঠে ২০১১ সালের বিশ্বকাপে সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে ৬ ম্যাচে ৩টি জয় পেয়েছিল টাইগাররা।
গত বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দল খেলেছিল ৬টি ম্যাচ। তবে নিষেধাজ্ঞার কারণে একটি ম্যাচে ছিলেন না মাশরাফি। এছাড়া তার অধীনে বাকি ৫ ম্যাচের ৩টিতেই জয়লাভ করে বাংলাদেশ। আর এবার ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচেই জিতে জয়ের সংখ্যা চারে নিয়ে গেলেন মাশরাফি।