রোজ শুক্রবার, ৫ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, রাত ১২:২৮

শিরোনামঃ
এইচ টি ইমাম আর নেই বরিশালে পুলিশ মেমোরিয়াল ডে পালিত চরফ্যাসন পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন সিদ্দিকুর রহমান মোক্তাদী ২য় বারের মত কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন মিজানুর রহমান মঞ্জু চরফ্যাসন পৌরসভার মেয়র হলেন নৌকার কান্ডারী এসএম মোরশেদ “মামলা তদন্তে অদক্ষতা, অলসতা, অমনোযোগীতা গাফিলতি, পক্ষপাতিত্ব বা অপেশাদারীত্বের অভিযোগ পেলে, কঠোর বিভাগীয় ব্যাবস্থা। ” মাসিক কল্যাণ সভায় বিএমপি কমিশনার। বাবুগঞ্জে সড়ক দূর্ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তা নিহত কাশিপুর ইউনিয়নে স্মার্ট কার্ড বিতরন করা হবে আগামী ৬ ই মার্চ কলাপাড়ায় প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেয়ায় প্রেমিক যুগলের বিষপান, প্রেমিকের মৃত্যু এবং প্রেমিকা হাসপাতালে। প্রতিপক্ষকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে বিএমপি’র জালে ০৩ (তিন)জন
ভারতে পাচারকালে নারী উদ্ধার, পাচারকারী আটক

ভারতে পাচারকালে নারী উদ্ধার, পাচারকারী আটক

অনলাইন ডেস্কঃ

ভারতে পাচারকালে মানবপাচারকারী চক্রের হাত থেকে এক নারীকে উদ্ধার করেছে বরিশাল র‌্যাব-৮ এর সদস্যরা। এ সময় লিটন খলিফা (৩৬) নামে পাচারকারী চক্রের এক সদস্যকে গ্রেফতার করা হয় । উদ্ধার হওয়া ওই নারীর বাড়ি বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায়। আটক লিটন খলিফা বাগেরহাটের মোড়লগঞ্জ এলাকার সালাম খলিফার ছেলে।
রোববার সন্ধ্যায় বরিশাল নগরীর রূপাতলী র‌্যাব-৮ সদর দফতরে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে উপ অধিনায়ক মেজর খান সজিবুল ইসলাম এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে লিটন খলিফাসহ তার তিন বোন ও বোন জামাই অবৈধভাবে ভারতে বসবাস করে আসছে। এই সুযোগে লিটন খলিফা ভাঙারি ব্যবসার আড়ালে ১৫ বছর ধরে বেনাপোল বর্ডার দিয়ে বাংলাদেশ থেকে বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষকে প্ররোচিত করে ভারতে পাচার করতেন। লিটন খলিফা চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে বিদেশ নিয়ে গেলেও পরে তাদের জিম্মি করে বিভিন্ন সমস্যার কথা বলে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়।
মেজর সজিবুল জানান, সম্প্রতি মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে লিটন খলিফার সঙ্গে উদ্ধার হওয়া ওই নারীর পরিচয় হয়। ওই নারীকে চাকরির প্রলোভন দেখাতো লিটন। এক পর্যায়ে তার ফাঁদে পা দেয় ওই নারী। লিটন খলিফা তাকে ভারতে পাচার করতে শনিবার দেশে আসে। রোববার সকালে তারা ভারতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিষয়টি জানতে পেরে, লিটন খলিফার অবস্থান নিশ্চিত হয়ে র‌্যাব সদস্যরা পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়ায় অভিযান চালায়। এ সময় লিটন খলিফাকে গ্রেফতার করে ওই নারীকে উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে লিটন খলিফা মানবপাচার চক্রের সঙ্গে জড়িত বলে স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় লিটন খলিফার বিরুদ্ধে মঠবাড়িয়া থানায় মানবপাচার ও দমন আইনে মামলার প্রস্ততি চলছে।