রোজ রবিবার, ৭ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, সকাল ৭:৫৮

শিরোনামঃ
১৩ (তের) পুরিয়া গাঁজা সহ গ্রেফতার ০১ ৭২ (বাহাত্তর) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ গ্রেফতার ০১ এইচ টি ইমাম আর নেই বরিশালে পুলিশ মেমোরিয়াল ডে পালিত চরফ্যাসন পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন সিদ্দিকুর রহমান মোক্তাদী ২য় বারের মত কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন মিজানুর রহমান মঞ্জু চরফ্যাসন পৌরসভার মেয়র হলেন নৌকার কান্ডারী এসএম মোরশেদ “মামলা তদন্তে অদক্ষতা, অলসতা, অমনোযোগীতা গাফিলতি, পক্ষপাতিত্ব বা অপেশাদারীত্বের অভিযোগ পেলে, কঠোর বিভাগীয় ব্যাবস্থা। ” মাসিক কল্যাণ সভায় বিএমপি কমিশনার। বাবুগঞ্জে সড়ক দূর্ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তা নিহত কাশিপুর ইউনিয়নে স্মার্ট কার্ড বিতরন করা হবে আগামী ৬ ই মার্চ
প্রশ্নপত্রে এবার ‘‘সেফুদা’’

প্রশ্নপত্রে এবার ‘‘সেফুদা’’

অনলাইন ডেস্কঃ রাজধানীর রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের স্কুল শাখার দশম শ্রেণির প্রাক নির্বাচনী পরীক্ষায় ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা বিষয়ের প্রশ্নপত্র নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা বিষয়ের ওই প্রশ্নপত্রের শৃজনশীল প্রশ্নের ১ নং প্রশ্নের উদ্দীপকে প্রবাসী সেফাতুল্লাহ সেফুদাÕর উক্তি দিয়ে প্রশ্ন করায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন স্ট্যাটাস ও বক্তব্য দিয়ে বিতর্কিত সমালোচনা হচ্ছে।
জানা গেছে, ৪ জুলাই ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা বিষয়ের পরীক্ষা হয়। সেই পরীক্ষার সৃজনশীল প্রশ্নের একটিতে সেফাতুল্লাহকে উদ্দীপক হিসেবে ব্যবহার করা হয়। তাতে বলা হয়, “অদ্ভুত ধরনের এক মানুষ সেফাতুল্লাহ সেফুদা। সোশ্যাল মিডিয়ায় সে বিভিন্ন রকম কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে। তরুণদের উদ্দেশে সে বলে ‘মদ খাবি মানুষ হবি, দেখ আমি আরও এক গ্লাস খাইলাম।’ তার কথায় প্রতিবাদ করে একজন বিজ্ঞ আলেম বললেন, তার মধ্যে যদি ইমানের সর্ব প্রথম ও সর্বপ্রধান বিষয়ের প্রভাব পরিলক্ষিত হতো, তাহলে সে হয়ে উঠত একজন আত্মসচেতন ও আত্ম মর্যাদাবান ব্যক্তি। ” এই উদ্দীপকের ভিত্তিতে চারটি প্রশ্ন করা হয়।
এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে অনেককে সমালোচনা করতে দেখা গেছে। এ বিষয়ে যোগাযোগের চেষ্টা করেও কলেজ কর্তৃপক্ষের কারও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
এর আগে গত এপ্রিল মাসে ঢাকার রামকৃষ্ণ মিশন উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির বাংলা প্রথম পত্রের বহু নির্বাচনী প্রশ্নপত্রে (এমসিকিউ) দুটি প্রশ্নের সম্ভাব্য উত্তরে পর্ণো তারকা মিয়া খলিফা ও সানি লিওনের নাম এসেছিল। তখন সেটি নিয়ে সমালোচনা হলে ওই শিক্ষককে বরখাস্ত করা হয়েছিল।