রোজ শনিবার, ২৪শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৫:৫৭

শিরোনামঃ
বরিশালে ৫ শত জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের মাঝে ব্যক্তিগত উদ্যোগে স্মার্ট সাদা ছড়ি দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী প্রবীণ আইনজীবী রফিক-উল হক আর নেই সুলতান আহম্মেদ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন, বরিশাল শাখার যাত্রা শুরু সুস্থভাবে বাঁচতে চায় শিশু তানজিলা, প্রয়োজন বিত্তবানদের সহযোগিতা। মেহেন্দিগঞ্জে মা ইলিশ রক্ষায় অব্যাহত অভিযানে ৬৭ জেলের কারাদন্ড এবং লক্ষাধিক টাকা জরিমানা আদায় পলাশপুর কলোনীতে মহানগর গোয়েন্দা বিএমপি’র ব্লক রেইড। মাধ্যমিকে বার্ষিক পরীক্ষা হচ্ছে না, অ্যাসাইনমেন্টে মূল্যায়ণ মেহেন্দিগঞ্জে মা ইলিশ রক্ষায় ৫৯ জেলের কারাদন্ড; ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা জরিমানা আদায়৷ সনাতন ধর্মালম্বীদের শারদীয় শুভেচ্ছা জানালেন হাজী মোঃ শরিফুল হক শারদীয় দুর্গা পূজা উদযাপন উপলক্ষে সদর উপজেলা ও মহানগরের পূজা মণ্ড‌পে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর অনুদান
নিজের বলার মত একটা গল্প ফাউন্ডেশনের হাজারতম দিন উদযাপন

নিজের বলার মত একটা গল্প ফাউন্ডেশনের হাজারতম দিন উদযাপন

ধানসিঁড়ি নিউজ।। “নিজের বলার মত একটা গল্প ” ফাউন্ডেশন এর আজ এক হাজারতম দিন উদযাপন করা হয়েছে। বাংলাদেশের ৬৪ জেলা সহ ৫০ টি দেশে একযোগে ১০০০ তম দিনটি উদযাপন হচ্ছে।

আজ ৩০ সেপ্টেম্বর বরিশাল জেলার ফাউন্ডেশন এর উদোক্তাগন সকাল ১০ ঘটিকায় কেক কেটে ও গাছ লাগিয়ে দিনটি উদযাপন করেন। উক্ত অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন যায় যায় দিন প্রত্রিকার বরিশাল ব্যুরো প্রধান আরিফুর রহমান, বরিশাল জেলা এম্বাসেডর মোশাররফ হোসেন, জেলা এম্বাসেডর তাহরিমা রচি, বিভিন্ন কলেজ এম্বাসেডর ও অর্ধশতাধিক উদীয়মান উদ্যোক্তা।

এসময় উদ্যোক্তাগন তাদের অনুভুতি প্রকাশ করে বলেন-
চার লাখ তরুণকে ফ্রি প্রশিক্ষণ কর্মশালার টানা ১০০০ দিনের ইতিহাস গড়েছেন ‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ইকবাল বাহার জাহিদ। শুধু বাংলাদেশে নয়, পুরো পৃথিবীতে কেউ কোনদিন টানা ১০০০ দিনের প্রতিদিন নির্দিষ্ট কন্টেন্ট দিয়ে কোনো ট্রেনিং কর্মশালা ফ্রি’তে করেননি। আজ ৩০ সেপ্টেম্বর তার এই অনলাইন প্রশিক্ষণের এক হাজারতম দিন পূর্ণ হয়েছে। এই উপলক্ষে দেশের ৬৪ জেলা ও ৫০টি দেশে একযোগে ১০০০ তম দিনটি উদযাপিত হচ্ছে। ঢাকায় কেন্দ্রীয়ভাবে কচি-কাঁচার আসর অডিটোরিয়াম, সেগুনবাগিচায় আজ উদযাপন অনুষ্ঠান হয়েছে।

নিজের বলার মতো একটা গল্প’ উদ্যোক্তা হওয়ার প্রশিক্ষণ, ১০টি বিষয়ে স্কিল শেখানো ও মূল্যবোধ সংক্রান্ত অনলাইন প্রশিক্ষণ কর্মশালার প্লাটফর্ম। মাত্র ১৬৪ জন তরুণ নিয়ে এই সামাজিক ও শিক্ষামূলক কাজের উদ্যোগ ২ বছর ৯ মাস আগে নিলেও এখন এটি একটি প্রতিষ্ঠান—যার প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট ইকবাল বাহার জাহিদ। তিনি নিজেও একজন উদ্যোক্তা। এই ফাউন্ডেশন এখন বাংলাদেশের সম্পদ।

৩টি বিষয় নিয়ে কাজ করে অনলাইন প্লাটফর্ম ‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’। বিষয়গুলো হলো—
১। উদ্যোক্তা বিষয়ক অনলাইনে টানা ৯০ দিন করে বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ প্রদান, অর্থাৎ একজন ইয়ুথকে উদ্যোক্তা হতে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ প্রদান এবং ৬৪ জেলায় ও ৫০টি দেশে উদ্যোক্তা মিট-আপ ও সম্মেলন।

২। মূল্যবোধ, লিডারশিপ, ১০টি বিষয়ে স্কিলস ও একজন ভালো মানুষ হয়ে উঠার চর্চাকেন্দ্র।

৩। ভলান্টিয়ারিং এবং সোশ্যাল ওয়ার্ক ও মানবিক কার্যক্রম।

বাংলাদেশের ৬৪ জেলা ও ৫০টি দেশের প্রবাসী বাংলাদেশি সহ মোট চার লাখ তরুণ-তরুণীকে ১০টি ব্যাচের মাধ্যমে ৩৬০টি কন্টেন্ট দিয়ে টানা ৯০ দিন করে বিনামূল্যে অর্থাৎ, কোনো ফি ছাড়া উদ্যোক্তা বিষয়ক, মূল্যবোধ, ভলান্টিয়ারিং ও ১০টি স্কিলস নিয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে এই প্লাটফর্ম থেকে।

পেইজ:https://www.facebook.com/Iqbalbahar28/, গ্রুপ:https://www.facebook.com/groups/
youngentrepreneursbdiqbal/

প্রতি সপ্তাহে মিট-আপের মধ্য দিয়ে চলছে অফলাইন কার্যক্রমও। গত আড়াই বছরে দেশে ও বিদেশে প্রায় ১,২০০ অনলাইন ও অফলাইন মিট-আপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। চলছে ১১ তম ব্যাচ।

প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা ইকবাল বাহার বলেন,‘চাকরি করব না চাকরি দেব’— এই ব্রত সামনে রেখে গত এক হাজার দিন ধরে একদিনের জন্যও এই প্রশিক্ষণ কর্মশালা বন্ধ ছিল না। এটা সারা বিশ্বে একটি ইতিহাস, এভাবে টানা ৯০ দিন এবং টানা এক হাজার দিনের কোনো প্রশিক্ষণ কর্মশালা পৃথিবীতে কেউ কোনোদিন করেনি। ইতিমধ্যে এই প্লাটফর্ম থেকে আমাদের সাত হাজার জন উদ্যোক্তা হয়েছেন।তাদের মধ্যে বহু নারী উদ্যোক্তা।এখন তাদের প্রত্যেকেই একজন স্কিলড,পজিটিভ ও ভালো মানুষ।

ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগের সঙ্গে তিনি এনেছেন দেশের এই প্রথম ৬৪ জেলা নিয়ে শুরু হয়েছে ‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’ প্লাটফর্মের ‘সাপ্তাহিক অনলাইন হাট’— প্রতি মঙ্গলবার, সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত টানা ১২ ঘণ্টা।

হাজারতম দিন উপলক্ষে বরিশাল জেলা এম্বাসেডর মোশাররফ হোসেন বলেন আমাদের প্রিয় মেন্টর ইকবাল বাহার স্যার এর লক্ষ্য আগামী ১ বছরের মধ্যে এক লাখ মানুষের কর্মসংস্থান তৈরি করা।

আজকের এই অনুষ্ঠান সফল করার জন্য যারা স্পন্সর, ভলান্টিয়ার,হা‌ফিজ হাওলাদার ভাইর সৌজন্য গাছ দিয়েছেন ও অংশগ্রহন কারি সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।