রোজ বৃহস্পতিবার, ১৫ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১:০১

প্রতিপক্ষকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে বিএমপি’র জালে ০৩ (তিন)জন

প্রতিপক্ষকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে বিএমপি’র জালে ০৩ (তিন)জন

ধানসিঁড়ি নিউজ।। প্রতিপক্ষকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে বিএমপি’র জালে আটক তিন জন।

অবৈধ অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার অভিযান তথা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা ডিউটিকালীন ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ খ্রিঃ বদুপুর ২টার সময়ে “কোতয়ালী মডেল থানাধীন ১২নং ওয়ার্ডের আমতলা মোড় পানির ট্যাংকি, বিজয় বিহঙ্গ চত্তরের পূর্ব পাশে “হাওলাদার স্টোর” নামক দোকানের সামনে পাকা রাস্তার উপর একজন ব্যক্তি ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা সহ মাদকদ্রব্য (ইয়াবা ট্যাবলেট) বিক্রয় জন্য অবস্থান করিতেছে” মর্মে সংবাদের ভিত্তিতে, মহানগর গোয়েন্দা বিএমপি’র পুলিশ পরিদর্শক মোঃ ফিরোজ আহমেদ এর নেতৃত্বে, এসআই সৈয়দ মোঃ খাইরুল আলম সহ সঙ্গীয় অফিসারবৃন্দ নগরীর কোতয়ালী মডেল থানাধীন ১২নং ওয়ার্ডের আমতলা মোড় পানির ট্যাংকি, বিজয় বিহঙ্গ চত্তর সংলগ্ন “হাওলাদার স্টোর” নামক দোকানের সামনে অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযান পরিচালনাকালে, গোয়েন্দা টিম গোপন সংবাদদাতা কোতোয়ালি মডেল থানাধীন ২০ নং ওয়ার্ডস্থ প্রফেসর গলি এলাকার মৃতঃ আঃ সোবহান মিয়ার ছেলে মোঃ হাবিবুর রহমান (৩৮) ও একই ওয়ার্ডস্থ সোবহান মিয়ার পোল এলাকার আঃ সালাম শামীম মিয়ার ছেলে রাশেদুল ইসলাম ঈমন(২৪) কে একসঙ্গে ঘটনাস্থলেই দেখতে পান।

অতঃপর রাশেদুল ইসলাম ঈমন এর দেখানোমতে একটি চালক বিহীন ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা দেখা মাত্র সাংবাদদাতা হাবিবুর রহমান জানায় যে, “উক্ত অটোরিক্সার চালক একজন পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী, সে উক্ত অটোরিক্সায় করে বরিশাল শহরের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে মাদকসেবীদের নিকট মাদকদ্রব্য বিক্রয় করে এবং বর্তমানে তাহার রিক্সায় মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট আছে।

সাংবাদদাতা মোঃ হাবিবুর রহমান এর কথাবার্তায়
মাদকদ্রব্য দিয়ে নিরীহ হতদরিদ্র অটোরিক্সা চালককে ফাঁসানোর হচ্ছে মর্মে সন্দেহ হলে, রাশেদুল ইসলাম ঈমন ও সাংবাদদাতা মোঃ হাবিবুর রহমানকে নগর গোয়েন্দা বিএমপি’র চৌকস কর্মকর্তা সম্মিলিত বুদ্ধিদীপ্ত কৌশলী টিম জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে, রাশেদুল ইসলাম ঈমন অটোরিক্সাটির সিটের পাশে সাদা স্বচ্ছ পলিথিনে আটকানো কালো কসটেপ দ্বারা পেঁচানো ০৯ (নয়) পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট কিছুক্ষণ আগে বরিশাল শের-ই বাংলা হাসপাতালের সামনে বসে উক্ত রিক্সায় রাখার তথ্য জানালে স্বীকারোক্তি মোতাবেক তার হাতেই অটোরিক্সার সিটের পাশ থেকে সাদা স্বচ্ছ পলিথিনে আটকানো কালো কসটেপ দ্বারা পেচানো ০৯ (নয়) পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট বের করান এবং রাশেদুল ইসলাম ঈমন ও সাংবাদদাতা মোঃ হাবিবুর রহমানকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেন।

আসামীদ্বয় জানান যে, উক্ত অটোরিক্সাটির চালক- মোঃ আব্দুস শুক্কুর রাঢ়ী’র সাথে একই থানাধীন ১৭ নং ওয়ার্ড উত্তর আলেকান্দার মোহ জয়নাল আবেদীন’র ছেলে মোঃ বাবলু হাওলাদার (৩৮) এর জমি-জমা নিয়া পূর্ববিরোধ থাকায়, মাদক দিয়ে ফাঁসাতে উক্ত মাদকদ্রব্য ০২ নং আসামী মোঃ হাবিবুর রহমানকে দিলে সে ০১ নং আসামী রাশেদুল ইসলাম ঈমন এর মাধ্যমে উক্ত অটোরিক্সার সিটের পাশে ইয়াবা ট্যবলেট রেখে নগর গোয়েন্দা বিএমপিকে ভুল তথ্য প্রদান করে।

অতঃপর ২নং আসামী মোঃ হাবিবুর রহমান এর দেয়া তথ্য মতে কোতয়ালী মডেল থানাধীন ১২নং ওয়ার্ডের আমতলা মোড় পানির ট্যাংকি, বিজয় বিহঙ্গ চত্তর সংলগ্ন গৌরনদী মিষ্টান্ন ভান্ডারের সম্মুখ থেকে ৩নং আসামী মোঃ বাবলু হাওলাদারকে গ্রেফতার করেন এবং জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত আসামী দোষ স্বীকার করেন।

এসময় আসামিদের কাছ থেকে তিনটি মোবাইল সেট, একটি চাবিসহ মটরসাইকেল ও একটি ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা উদ্ধার করেন।

ধৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

০১ নং ও ০২ নং আসামীদ্বয় বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী প্রদান করেছেন।