রোজ শনিবার, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ২:১১

‘গরীবরা আর্থিকভাবে দিন দিন গরীব হচ্ছে, ধনীরা হচ্ছে আরও ধনী’

‘গরীবরা আর্থিকভাবে দিন দিন গরীব হচ্ছে, ধনীরা হচ্ছে আরও ধনী’

ধানসিঁড়ি নিউজঃ
সম্পদের সুষম বণ্টনের দেশগুলো হচ্ছে সুইজারল্যান্ড, ডেনমার্ক, নরওয়ে ও সুইডেন। আর অন্যদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র হলো সম্পদের সবচেয়ে অসম বণ্টনের দেশ। বাংলাদেশের জনগণের মধ্যে আর্থিকভাবে নিচের দিকে থাকা গরীবরা দিন দিন গরীব হচ্ছে আর উপরের দিকে থাকা ধনীরা হচ্ছে আরও ধনী। কারণ দেশের সম্পদ বণ্টনের ক্ষেত্রে ইউরোপের মডেল অনুসরণ না করে, আমরা আমেরিকার মডেল অনুসরণ করছি। এমনটাই জানিয়েছেন বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ।

তিনি বলেন, সম্প্রতি অবৈধভাবে লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে নৌকা ডুবে অন্তত ৩৭ বাংলাদেশি নিহত হয়। বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের কথা বলা হলেও দেশের তরুণরা বিদেশ যাওয়ার চেষ্টা করছে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে। এর কারণ হিসেবে সম্পদ বণ্টনের ক্ষেত্র আমেরিকার মডেল অনুসরণ করাকে দায়ী করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, জিডিপি প্রবৃদ্ধিসহ দেশের উন্নয়ন হচ্ছে। কিন্তু এই প্রবৃদ্ধি থেকে আসা টাকাগুলো দেশের মানুষের মধ্যে সুষম বণ্টন হচ্ছে না। জাতীয় আয়ের বেশিরভাগ চলে যাচ্ছে মাত্র পাঁচ শতাংশ মানুষের হাতে। বাকি ৯৫ শতাংশ মানুষ খালি হাতে বসে আছে। তাই সম্পদের সঠিক বণ্টনের জন্য পদক্ষেপ নিতে পলিসি পরিবর্তন করতে হবে। অন্যথায় তরুণরা দেশের বাহিরে যাবার জন্য এমন ঝুঁকিপূর্ণ চেষ্টা করবে।

খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ বলেন, সম্পদের সুষম বণ্টন নিশ্চিত করতে পলিসি পরিবর্তন করতে হবে। আর নীতিনির্ধারণ করতে প্রয়োজন রাজনৈতিক সদিচ্ছা। কতগুলো সিস্টেমের মধ্য দিয়ে পলিসি পরিবর্তন করতে হয়। সাধারণ জনগণ তা পরিবর্তন করতে পারে না। তাই সরকার পলিসি পরিবর্তন করবে কিনা তা আগে ঠিক করলে অর্থনীতিবিদরা সেই পলিসি বাস্তবায়ন করতে সাহায্য করবে। কিন্তু দেশের সরকার সুষম বণ্টনের পলিসি বাদ দিয়ে শুধু প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধির পলিসি নিয়ে কাজ করছে।