রোজ বুধবার, ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, দুপুর ২:১৫

আল-আরাফা ইসলামী ব্যাংকের সাবেক এমডি হাবিবুর রহমানের ইন্তেকাল

আল-আরাফা ইসলামী ব্যাংকের সাবেক এমডি হাবিবুর রহমানের ইন্তেকাল

বিশেষ রিপোর্টার:

আল-আরাফা ইসলামী ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ হাবিবুর রহমান(৬৫) গতকাল শুক্রবার রাত পৌনে ১১টায় ঢাকাস্থ বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালের নিবির পরিচর্যা কেন্দ্রে দূরারোগ্য ক্যান্সার রোগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন বলে জানিয়েছেন মরহুমের বড় ভাইয়ের ছেলে সাংবাদিক মাসুম মিজান (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নাইলাইহি রাজিউন)।
মরহুমের ১ম নামাজে জানাযা আজ সকাল ১০টায় উত্তরা ৯ নম্বর সেক্টরে জামে মসজিদে এবং বাদজোহর বায়তুল মোকাররম জামে মসজিদে ২য় নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। আগামী রবিবার সকাল ৯টায় বরিশাল মুসলিম গোরস্থান রোড জামে মসজিদে তৃতীয় নামাজে জানাযা শেষে গোরস্থানে দাফন করা হবে।
বরিশালের মুসলিম গোরস্থান রোডের মরহুম আলহাজ্ব আব্দুল খালেকের ছয় ছেলে ও চার মেয়ের মধ্যে মরহুম হাবিবুর রহমান ২য় পুত্র ছিলেন। মৃত্যুকালে স্ত্রী, দুই ছেলে ও অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।
বরিশাল জিলা স্কুলে তাঁর শিক্ষা জীবন শুরু হয়। এরপর বিএম কলেজে অধ্যয়ন শেষ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতি বিষয়ে উচ্চতর ডিগ্রী গ্রহণ করার পরে সোনালী ব্যাংকে প্রভেশনাল অফিসার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। পরবর্তীতে ইসলামী ব্যাংকের ডিএমডি, পরপর দুইবার আল-আরাফা ব্যাংকের এমডি হয়ে অবসর গ্রহণ করেন। ব্যাংকে কর্মরত অবস্থায় আত্মীয়-স্বজন, প্রতিবেশী ও অসহায় শতাধিক মানুষকে ব্যাংকসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকরীর সুযোগ করে দেন তিনি। বরিশালের মুসলিম গোরস্থান জামে মসজিদ পুন:নির্মাণে প্রধান উদ্যোক্তা ছিলেন হাবিবুর রহমান। মসজিদ-মাদ্রাসা ও এতিমখানাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষক ছিলেন।
হাবিবুর রহমানের মতো সৎ মানুষকে হারিয়ে গোরস্থান রোড এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া।
হাবিবুর রহমানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হােসেন। তিনি বলেন, “হাবিবুর রহমানের মত পরোপকারী মানুষ বর্তমান সময়ে হয় না। যে কোনো প্রয়োজনে তার কাছে গেলে তিনি কাউকে তিনি নিরাশ করেননি। আমিও বিভিন্ন ভাবে তাঁর কাছে ঋণী।” এস এম জাকির হােসেন সকলের কাছে মহুমের জন্য দোয়া চেয়েছেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।