রোজ শুক্রবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, রাত ৯:৫৩

শিরোনামঃ
কাশিপুর ইউনিয়নে স্মার্ট কার্ড বিতরন করা হবে আগামী ৬ ই মার্চ কলাপাড়ায় প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেয়ায় প্রেমিক যুগলের বিষপান, প্রেমিকের মৃত্যু এবং প্রেমিকা হাসপাতালে। প্রতিপক্ষকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে বিএমপি’র জালে ০৩ (তিন)জন স্বাক্ষরিত হলো বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, অর্থ মন্ত্রণালয় ও সোনালী ব্যাংক এর মধ্যে একটি ত্রি-পক্ষীয় গৃহনির্মাণ ঋণ প্রদান সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক চুক্তি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের তিন দিনের আলটিমেটাম বেসরকারী সার্ভেয়ার এসোসিয়েশন ( BNSA ) এর পক্ষ থেকে বসিক এর ৪০ কাউন্সিলর এর মাঝে ক্যালেন্ডার বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেছেন। ৪ (চার) মামলার গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত দুধর্ষ পলাতক আসামী মোঃ মন্টু মোল্লা গ্রেফতার। বরিশালের নতুন বিভাগীয় কমিশনার সাইফুল হাসান বাদল বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের রামপট্টিতে বাস-এ্যাম্বুলেন্স মুখোমুখি সংঘর্ষে নবজাতক নিহত ॥ গুরুতর আহত -৬ বরিশালে বিএমপি’র পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ।
দিনেদুপুরে মা-ছেলেসহ চারজনকে কুপিয়ে হত্যা

দিনেদুপুরে মা-ছেলেসহ চারজনকে কুপিয়ে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক: কুমিল্লার দেবীদ্বারে দিনেদুপুরে মা-ছেলেসহ চারজনকে কুপিয়ে হত্যা করেছে মোখলেসুর রহমান (৩৪) নামে এক যুবক। এ ঘটনায় গণপিটুনিতে নিহত হয়েছেন ঘাতক মোখলেসুর রহমান।

বুধবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের রাধানগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন- রাধানগর গ্রামের মো. শাহ আলমের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (৪০), ছেলে আবু হানিফ ( ১২), একই গ্রামের নুরুল ইসলামের স্ত্রী নাজমা আক্তার (৩৬) ও মা মাজেদা বেগম (৫৫)। ঘাতক মোখলেসুর রহমান একই গ্রামের মর্তুজা আলীর ছেলে।

দেবীদ্বার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহিরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ঘাতক মোখলেসুর রহমান প্রতিবেশী আনোয়ারা বেগম, হানিফ, নাজমা বেগম ও মাজেদা বেগমসহ ৬/৭ জনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করেন। এতে আনোয়ারা বেগম, হানিফ ও নাজমা বেগম ঘটনাস্থলেই মারা যান।

এ ঘটনায় আহত মাজেদা বেগমসহ অন্যদের কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মাজেদা বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। অন্য আহতরা চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

ওসি জহিরুল হক জানান, নিহত ঘাতকসহ পাঁচজনের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ঘটনার প্রকৃত কারণ জানা যায়নি, তদন্ত চলছে।