রোজ শনিবার, ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ১:৪২

শিরোনামঃ
বরিশালে ঘুরতে এসে বাসের চাপায় প্রাণ গেল তিন জনের দীর্ঘদিন বন্ধের পরে আজ খুলেছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, পরিদর্শনে বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসক বরিশালে ৬ ফার্মেসিকে ২৭ হাজার টাকা জরিমানা বিশেষ কায়দায় ফেনসিডিল বহন করেও শেষ রক্ষা হলো না তাদের, বিএমপি’র অভিযানে আটক ৪। দুইজন নারী ও ফেন্সিডিলসহ বরিশালে মাদক ব্যবসায়ী বুলেট গ্রেফতার কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার একজন বিএমপি’র অভিযানে ৪৫ পিস ইয়াবা সহ গ্রেফতার ০২ বরিশালে লকডাউন বাস্তবায়নে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ১ লক্ষ ৩৭ হাজার টাকা জরিমানা ও ৬ জনকে আটক। মীরগঞ্জ খেয়াঘাটে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের প্রতিবাদ করায় যাত্রীকে মারধর- অভিযুক্ত গ্রেফতার নগদের ৮ লক্ষ টাকা ছিনতাইয়ের রহস্য উদঘাটন, ডিএসও নুরুল্লাহ গ্রেফতার।
ধান সংগ্রহে ডিসিদের কার্যক্রম জোরদারের নির্দেশ দিলেন খাদ্যমন্ত্রী

ধান সংগ্রহে ডিসিদের কার্যক্রম জোরদারের নির্দেশ দিলেন খাদ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক: ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতে কৃষকদের কাছ থেকে ধান সংগ্রহে জেলা প্রশাসকদের কার্যক্রম জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।
১৬ জুলাই, মঙ্গলবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনের তৃতীয় দিনের প্রথম অধিবেশন শেষে খাদ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের এ কথা জানান।
খাদ্য মন্ত্রণালয় এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে জেলা প্রশাসকদের এ অধিবেশন হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।
খাদ্যমন্ত্রী বলেন, “আমরা এবার বোরো ধান কিনব চার লাখ টন, গতকাল পর্যন্ত এক লাখ ১৫ হাজার টন ধান কেনা হয়েছে। জেলা প্রশাসকগণ সাহায্য করছেন, সেটা আরও জোরদার করার জন্য এবং আমাদের লোকেরা যাতে আরও বেশি অ্যাকটিভ হয়, ডিসি সাহেবরা যাতে নির্বাহী অফিসারদের মাঠে নামিয়ে দিয়ে কৃষকদের কাছ থেকে ধান কিনতে পারেন, সে জন্য তাঁদের নির্দেশনা দিয়েছি। এছাড়া আরেকটি নির্দেশনা হলো, প্রত্যেক জেলায় নিরাপদ খাদ্যের অফিস হবে। মানুষ যাতে ভেজালমুক্ত খাবার গ্রহণ করতে পারে, সে জন্য তাদের আরও কঠোর হওয়ার জন্য বলা হয়েছে”
এখন দেশের বিভিন্ন জেলায় বন্যা চলছে। আগামীতে কোনো খাদ্য সংকটের আশঙ্কা আছে কি না- জানতে চাইলে সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, “কোনো সংকট নেই। আমাদের খাদ্যের পর্যাপ্ত মজুদ আছে। খাদ্যগুদামে শুধু খাদ্যই নয়, ত্রাণও পর্যাপ্ত মজুদ আছে। যেকোনো অবস্থা মোকাবেলা করতে আমরা প্রস্তুত আছি।”
খাদ্যমন্ত্রী আরও বলেন, “বিভিন্ন জায়গায় গোডাউন নির্মাণ ও নিরাপদ খাদ্যের অফিস করার প্রস্তাব দিয়েছেন জেলা প্রশাসকগণ। এগুলো আমরা বানাব, আমরা প্রকল্প গ্রহণ করেছি।”
এই অধিবেশনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান ও বিভাগীয় কমিশনররা উপস্থিত ছিলেন।