রোজ বৃহস্পতিবার, ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৭:১৬

শিরোনামঃ
বরিশালে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ২ মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু নির্বাচনে বিঘ্ন সৃষ্টিকারী, অনাকাঙ্ক্ষিত ব্যক্তিদের কঠোর হস্তে দমন করা হবে-পুলিশ কমিশনার বিএমপি। মানুষকে সেবা প্রদান করে যে ভালোবাসা পাওয়া যায়, তার চাইতে বড় আত্মতৃপ্তি আর কিছুই নেই__পুলিশ কমিশনার বিএমপি। বরিশালে ৪৬ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার ০২ জন বাকেরগঞ্জে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে, কারাগারে পাঠানোর দায়ে, ম্যাজিস্ট্রেটের বিচারিক ক্ষমতা প্রত্যাহারের নির্দেশ ১২০ পিস ইয়াবা সহ গ্রেফতার ০২ নাগরিক নিরাপত্তা ও সামাজিক সমস্যা নিরসনে বিএমপি সদা জাগ্রত- বিএমপি কমিশনার। বরিশালে ০৩ কেজি গাঁজা সহ গ্রেফতার ০১ পটুয়াখালীতে প্রেমিক যুগলের একই দড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা বিএমপি’র অভিযানে ২০৫ পিস ইয়াবা ও ৫৮ গ্রাম গাঁজা সহ গ্রেফতার ০২
হজক্যাম্পের আশপাশের খাবার দোকানগুলোতে পচা-বাসি খাবার বিক্রি করায় জরিমানা

হজক্যাম্পের আশপাশের খাবার দোকানগুলোতে পচা-বাসি খাবার বিক্রি করায় জরিমানা

অনলাইন নিউজ ডেস্কঃ রাজধানীর আশকোনা হজক্যাম্প ও তার আশপাশের খাবার দোকানগুলোতে পচা-বাসি ও মেয়াদোত্তীর্ণ খাবার বিক্রির অপরাধে ১০টি দোকানকে ২৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়াও তিনজনকে ছয় মাস করে কারাদণ্ড এবং একটি দোকান বন্ধ করে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে জরিমানা করা প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- এসো কিছু খাই রেস্টুরেন্ট, নিউ পারভিন রেস্টুরেন্ট, ভাই ভাই রেস্টুরেন্ট, আলিফ কিচেন অ্যান্ড পার্টি সেন্টার, থ্রি স্টার হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট, নিউ বাংলা খাবার হোটেল, বিসমিল্লাহ্ রেস্তোরা, হলিডে এক্সপ্রেস, মক্কা রেস্তোরা ও ওয়ান্ডার ইন রেস্তোরা।
শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত আশকোনা হজক্যাম্প, হজক্যাম্প রোড ও দক্ষিণখানের বিভিন্ন রেস্তোরায় এ অভিযান চলে । অভিযানের নেতৃত্ব দেন র্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম।
অভিযানের বিষয়ে সারোয়ার আলম বলেন, এসব রেস্তোরায় এই মৌসুমে সাধারণত হজযাত্রী ও তাদের আত্মীয়স্বজনরা খাওয়া-দাওয়া করেন। অথচ অভিযানে গিয়ে সেখানে মেয়াদোত্তীর্ণ, পচা-বাসি খাবার দেখতে পাই আমরা। রেস্তোরাগুলোর ফ্রিজে মেয়াদোত্তীর্ণ পনির, দুধ, পচা মাংস ও বাসি পোলাও পাওয়া গেছে। এমন দৃশ্য দেখে তাদের জরিমানা করা হয়েছে। তিনি বলেন, অভিযানে ভাই ভাই রেস্টুরেন্টের তিনজনকে ছয় মাস করে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে এবং প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্তরা হচ্ছেন মো. জামাল, সাইদুর রহমান ও সাগর।