রোজ রবিবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১:১৯

শিরোনামঃ
বাবুগঞ্জে সড়ক দূর্ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তা নিহত কাশিপুর ইউনিয়নে স্মার্ট কার্ড বিতরন করা হবে আগামী ৬ ই মার্চ কলাপাড়ায় প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেয়ায় প্রেমিক যুগলের বিষপান, প্রেমিকের মৃত্যু এবং প্রেমিকা হাসপাতালে। প্রতিপক্ষকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে বিএমপি’র জালে ০৩ (তিন)জন স্বাক্ষরিত হলো বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, অর্থ মন্ত্রণালয় ও সোনালী ব্যাংক এর মধ্যে একটি ত্রি-পক্ষীয় গৃহনির্মাণ ঋণ প্রদান সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক চুক্তি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের তিন দিনের আলটিমেটাম বেসরকারী সার্ভেয়ার এসোসিয়েশন ( BNSA ) এর পক্ষ থেকে বসিক এর ৪০ কাউন্সিলর এর মাঝে ক্যালেন্ডার বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেছেন। ৪ (চার) মামলার গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত দুধর্ষ পলাতক আসামী মোঃ মন্টু মোল্লা গ্রেফতার। বরিশালের নতুন বিভাগীয় কমিশনার সাইফুল হাসান বাদল বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের রামপট্টিতে বাস-এ্যাম্বুলেন্স মুখোমুখি সংঘর্ষে নবজাতক নিহত ॥ গুরুতর আহত -৬
চার দশক পর কবরী ও সোহেল রানা জুটি

চার দশক পর কবরী ও সোহেল রানা জুটি

অনলাইন বিনোদন ডেস্ক: ‘মনের রঙে রাঙাব, বনের ঘুম ভাঙাব’ গানটির শুনলে যাঁর মুখ ভেসে ওঠে, তিনি কবরী। সত্তরের দশকে মাসুদ রানা ছবির এ গানে ঠোঁট মিলিয়েছিলেন কবরী। সোহেল রানা ছিলেন সেই সিনেমার নায়ক। চার দশক পর আবার তাঁরা দুজন আসছেন বড় পর্দায়। সরকারি অনুদানে নির্মিতব্য এ ছবির নাম এই তুমি সেই তুমি। অভিনয়ের পাশাপাশি ছবির কাহিনি, চিত্রনাট্য, সংলাপ রচনা ও পরিচালনা করেছেন কবরী।
মাসুদ রানা ছাড়াও কবরী এবং সোহেল রানা অভিনয় করেছিলেন প্রেম বন্ধন ও গোপন কথা নামের দুটি সিনেমায়। সত্তরের দশকের পর অবশ্য একসঙ্গে আর কোনো ছবিতে কাজ করা হয়নি তাঁদের। কয়েক বছর আগে অবশ্য আবার আসিব ফিরে নামের একটি নাটকে অভিনয় করেছিলেন তাঁরা। এটি ছিল জুটি হিসেবে তাঁদের প্রথম টেলিভিশন নাটক।
সোহেল রানার প্রথম ছবি মাসুদ রানার নায়িকা ছিলেন কবরী। সেই সময়কার কথা মনে করে বরেণ্য এই চিত্রনায়ক বলেন, ‘প্রথম ছবি থেকেই আমরা পরস্পরের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রেখেছি। আমাদের সময়কার একজন সহশিল্পী ছবি বানাচ্ছেন, কয়েক দিন আগে এক আড্ডায় ছবির প্রসঙ্গও এল। তাই বেশি কিছু জানতে চাইনি। নিশ্চয় আমার সঙ্গে মানায় এমন একটি চরিত্রেই কাজ করব। এই ছবিতে কাজের ক্ষেত্রে পরস্পরের প্রতি মমত্ববোধ, ভালো লাগা, ভালোবাসা, শ্রদ্ধার ব্যাপারটি কাজ করেছে। তিনি যে আমার কথা মনে রেখেছেন, সেটা ভেবে ভালো লেগেছে। মনে হচ্ছে, এই কাজের ফাঁকে পুরোনো শিল্পীদের সঙ্গে একটা চমৎকার আড্ডা হবে।’
কবরী বলেন, ‘কদিন আগে তাঁকে দেখতে উত্তরার বাসায় গিয়েছিলাম। আড্ডা দিচ্ছিলাম। দেশ, সমাজ, রাজনীতি নিয়ে আলাপ শেষে যখন চলে আসব, তখন আমার এই ছবির প্রসঙ্গ ওঠে। গল্পটা তাঁকে আগেও শুনিয়েছিলাম। সেদিন শুনে বললেন, আমি থাকছি। আমাকে বাদ দিচ্ছেন কেন? তাঁর এমন আন্তরিকতাপূর্ণ স্বর শুনে বিস্মিত হয়েছি।’
সোহেল রানা প্রসঙ্গে কবরী বলেন, ‘সোহেল রানা একসময় তুখোড় ছাত্রনেতা ছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইকবাল হলের ভিপি ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধেও অংশ নিয়েছেন। একজন মানুষ যে ভালো হতে পারেন, তা শুধু চলচ্চিত্রে অভিনয় দিয়ে নয়, আরও নানা গুণের কারণে তিনি আমাদের কাছে অনন্য হয়ে ওঠেন। আমিও তাঁকে সেভাবেই মূল্যায়ন করি। আবারও আমরা একসঙ্গে কাজ করতে যাচ্ছি, নিশ্চয়ই চমৎকার কিছু সময় কাটবে আমাদের।’
অক্টোবরে এই তুমি সেই তুমি ছবির শুটিং শুরু হচ্ছে। তার আগে ছবির গানের কাজ শেষ করতে চান পরিচালক ও অভিনয়শিল্পী কবরী। পরিচালক হিসেবে তিনি নির্মাণ করেছেন আয়না নামের একটি ছবি।