রোজ শনিবার, ২৪শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৪:০১

শিরোনামঃ
মীরগঞ্জ খেয়াঘাটে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের প্রতিবাদ করায় যাত্রীকে মারধর- অভিযুক্ত গ্রেফতার নগদের ৮ লক্ষ টাকা ছিনতাইয়ের রহস্য উদঘাটন, ডিএসও নুরুল্লাহ গ্রেফতার। বিএমপি’র সৌজন্যে অসহায় ও দুঃস্থদের মাঝে ঈদ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠিত মেহেন্দিগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গৃহবধূকে পিটিয়ে জখম। মতলবে দি একমি ল্যাবরেটরিজ লিঃ এর বিক্রয় প্রতিনিধির আত্মহত্যা নগরীতে করোনা প্রতিরোধ বুথের উদ্বোধন করলেন পুলিশ কমিশনার বিএমপি। বরিশালে জেলা প্রশাসন ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সমন্বয়ে ৩ শতাধিক শিশুকে খাদ্য বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দে ১নং রায়পাশা-কড়াপুর ইউনিয়নের মাখরকাঠী গ্রামের পাকা রাস্তার কাজ শেষ পর্যায়ে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্ট্রাল অক্সিজেন দেওয়া হবে-পংকজ নাথ এমপি বরিশালে প্রথম দফায় নির্বাচিত ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত
নবজাতককে কোলে নিয়ে ভিডিও কলে বিয়ে

নবজাতককে কোলে নিয়ে ভিডিও কলে বিয়ে

Photo Collected
অনলাইন ডেস্কঃ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে নবজাতককে কোলে নিয়ে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন এক তরুণী। আজ বুধবার দুপুরে ভিডিও কলের মাধ্যমে তিনি মালয়েশিয়া প্রবাসী সংশ্লিষ্ট যুবককে বিয়ে করেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মমতাজ বেগম স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে এই বিয়ের ব্যবস্থা করেন।
ওই কনের পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বছরখানেক আগে ওই যুবকের সঙ্গে তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। একপর্যায়ে তরুণী সন্তানসম্ভবা হয়ে পড়লে যুবক তাঁকে অস্বীকার করতে শুরু করেন। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকার সালিস-বৈঠক হলেও কোনো লাভ হয়নি। এক মাস আগে ওই যুবক মালয়েশিয়া পাড়ি জমান।
কনের পরিবার জানিয়েছে, ছয় দিন আগে কন্যাসন্তানের জন্ম দেন ওই তরুণী। এরপর তরুণীর বাবা মুঠোফোনে যুবককে বিয়ের কথা জানালে তিনি তাতে অস্বীকৃতি জানান। পরে স্থানীয় লোকজনের কাছে বিচারের আশায় পাঁচ দিন ঘুরেও উপযুক্ত কোনো সমাধান করতে না পেরে তরুণীর পরিবার ইউএনওর কাছে নবজাতকের পিতৃ পরিচয় পেতে বিচার দাবি করে। পরে ইউএনও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের (ইউপি) মাধ্যমে উভয় পরিবারকে নোটিশ করেন।
ইউএনওর নোটিশের পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা অডিটোরিয়ামে এই বিয়ের ব্যবস্থা করা হয়। উভয় পরিবারের সম্মতিতে ১০ লাখ টাকা কাবিন ও নবজাতকের নামে ২ শতক জমি লিখে দেওয়ার চুক্তিতে এই বিয়ে হয়। বিয়ের শাড়ি, কাবিনের ফি ও বিভিন্ন খরচ ইউএনও নিজেই বহন করেন।
বিষয়টির সুষ্ঠু ও সামাজিকভাবে সমাধান হওয়ায় স্থানীয়রা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। বিয়ের সময় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ওমর ফারুক ভূঁইয়া, সংশ্লিষ্ট ইউপির চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্যসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।